শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ধরন

বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ কর্পোরেশন (বিসিআইসি) এর নিয়ন্ত্রনাধীন ইউরিয়া ফার্টিলাইজার ফ্যাক্টরীর লিমিটেড, ঘোড়াশাল, নরসিংদী’র অর্থায়নে পরিচালিত একটি স্বায়ত্বশাসিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

 সংক্ষিপ্ত বর্ণনা

ঢাকা থেকে প্রায় 60 কিঃ মিঃ উত্তরে নরসিংদী জেলার পলাশ উপজেলায় অবস্থিত মনোরম পরিবেশে বিগত 1970 সালে ইউরিয়া সারকারখানা উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় নামে প্রতিষ্ঠানের যাত্রা শুরু। পরবর্তীতে 1983 সালে এর নাম পরিবর্তন করে ইউরিয়া সারকারখানা কলেজ করা হয়। ইউরিয়া সারকারখানা কলেজের ভিতরে ও বাহিরে দুইটি বিশাল খেলার মাঠ, 5টি সুসজ্জিত ল্যাবরেটরী (পদার্থ বিজ্ঞান, রসায়ন বিজ্ঞান, জীব বিজ্ঞান, ভুগোল, গার্হস্থ্য অর্থনীতি) 1টি কম্পিউটার ল্যাব, 1টি সু-পরিসর মাল্টিমিডিয়া ক্লাস রুম, 1টি ল্যাগুয়েজ ল্যাব, 1টি বিশাল পাঠাগার যা বিপুল সংখ্যক বই সমৃদ্ধ । দুইটি অফিস কক্ষ, দুইটি শিক্ষক-শিক্ষিকা মিলনায়তন ‘ও‘ আকৃতির বিশাল শিক্ষা ভবন। এছাড়াও রয়েছে নামাজের কক্ষ, ক্রীড়া কক্ষ, স্কাউট ডেন, বিএনসিসি কক্ষ ও সুসজ্জিত অধ্যক্ষ ও প্রধান শিক্ষক মহোদয়ের অফিস কক্ষ।

 লক্ষ্য

সার্বজনীন শিক্ষা মাত্রেরেই ভিতত্ত হচ্ছে জীবন সম্বন্ধে গভীর প্রত্যয়। তাই তার মূলে থাকা বিশেষ এক দর্শণ। ইউরিয়া সারকারখানা কলেজ প্রতিষ্ঠার মূলনীতি হচ্ছে পূর্ণাঙ্গ শিক্ষা দিয়ে ছাত্র-ছাত্রীদেরকে সত্যিকার মানুষ হিসেবে গড়ে তোলা। তাদের মন ও হৃদয় গঠনে সহায়তা করা। এ প্রতিষ্ঠান শুধু জীবিকা উপার্জনের জন্য ছাত্র-ছাত্র-ছাত্রীদের প্রস্তুত করবে তা নয়, বরং কীভাবে জীবন- যাপন করতে হয়, তাও শিক্ষা দেয়। ইউরিয়া সারকারখানা কলেজের উদ্দেশ্য কেবলমাত্র সম্ভাব্য উত্তম শিক্ষাদানই নয়, উপরন্তু ছাত্র-ছাত্রীদেরকে আদর্শ চরিত্রের অধিকারী করে গড়ে তোলাই এর প্রধান লক্ষ্য। ইউরিয়া সারকারখানা কলেজের শক্ষার লক্ষ্য হচ্ছে ছাত্র-ছাত্রীদের সামগ্রিক বিকাশ, আত্ননিবেদিত, সৃজনশীল,  সেবাব্রতী, বিদ্যা ও জ্ঞান অর্জন ও তা প্রয়োগে নিবিষ্ঠ ও দক্ষ এবং যুগের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় দায়িত্বশীল নাগরিক হিবসবে গড়ে তোলা।

 ইউরিয়া সারকারখানা কলেজ ছাত্র-ছাত্রীদের আদর্শ শিক্ষাদান ও চরিত্র গঠনের কাজে নিবেদিতিএকটি প্রতিষ্ঠান। আমাদের বিশ্বাস যে, অভিভাবকগণ অনেক আশা নিয়ে তাঁদের সন্তানদের শিক্ষার ভার অত্র কলেজের হাতে ন্যান্ত করেন। এ আশাওে প্রত্যাশা পূরণের জন্য কলেজও আপ্রাণ চেষ্ঠা করে। এখানে ছাত্র-ছাত্রীদের বিশ কিছু নিয়ম কানুন মেনে চলতে হয়। এর জন্য কলেজ কর্তৃপক্ষ অভিভাবকদের কাছ থেকেও সহযোগিতা কামনা করেন। ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে নিয়মনিষ্ঠা ও শৃঙ্খলাবোধ জাগিয়ে তোলার প্রধান উদ্দেশ্য হচ্ছে তাদেরকে চরিত্রবান ও দায়িত্বশীল সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে সহায়তা করা।

 শুরু থেকে আজ অবদি এদেশের অগনিত তরুন তরুনী এ কলেজ থেকে শিক্ষা লাভ করেছে এবং বর্তমানে তারা সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করছে। শ্রেণীকক্ষে পাঠদান, পরীক্ষাগারে নিয়মিত ব্যবহারিক অনুশীলন, সাপ্তাহিক, পাক্ষিক, সাময়িক ও বার্ষিক পরীক্ষাসমূহ এবং আনুষঙ্গিক বিভিন্ন সহশিক্ষার মাধ্যমে সুশৃঙ্খলভাবে তরুন-তরুনীদের শিক্ষাদান এবং তাদের শারীরিক, মানসিক ও নৈতিক বিকাশে সহায়তাদানে এই প্রতিস্ঠান একান্তভাবে নিয়োজিত। বিদ্যা অর্জনের সাথে সাথে চারিত্রিক গুনাবলী বিকাশে সহায়তা করে তাদেরকে পূর্নাঙ্গ মানুষ ও দায়িত্বশীল নাগরিক রুপে গড়ে তোলাই এ প্রতিষ্ঠানের প্রধান লক্ষ্য।

এ কলেজে প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শাখায় বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় শিক্ষা গ্রহণের সুযোগ রয়েছে। সুশিক্ষা লাখ করার জন্য কঠোর পরিশ্রম, অধ্যাবসায় ও একনিষ্ঠ সাধনার প্রয়োজন। এ উ উদ্দেশ্যে শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক নির্ধারিত নিয়মাবলী অনুসরণ ও পাঠ্যসূচী অধ্যয়নের পাশাপাশি সহশিক্ষায় অংশগ্রহণ করার সুযোগ সৃষ্টি করে ইউরিয়া সারকারখানা কলেজ ছাত্র-ছাত্রীদের সার্বিক বিকাশ লাভে সহায়তা করে।